বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটনের বিশেষ ছাড়

বাণিজ্য মেলা উপলক্ষে সারা দেশে বিভিন্ন ধরনের গৃহস্থালি জিনিসপত্রের দাম কমিয়েছে ওয়ালটন। এছাড়া চলমান ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটনের মেগা প্যাভিলিয়নে আগত ক্রেতাদের জন্য হোম এ্যাপ্লায়েন্সের উপর পাঁচ শতাংশ বিশেষ ছাড় ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ।

দাম কমানো হয়েছে ওয়ালটন ব্র্যান্ডের আয়রন, ওয়াশিং মেশিন, কফি মেকার, ইলেকট্রিক ও মাইক্রোওয়েব ওভেন, এয়ার ফ্রায়ার, হেয়ার স্ট্রেইটনার, ইলেকট্রিক প্রেসার কুকার, ইলেকট্রিক লাঞ্চ বক্সসহ প্রায় ২০টি গৃহস্থালি জিনিসপত্রের।

ওয়ালটন ব্র্যান্ডের আট কেজি ধারণক্ষমতার ওয়াশিং মেশিনের দাম আগের চেয়ে তিন হাজার টাকা কমে এখন পাওয়া যাচ্ছে ২৭০০০ টাকায়। একই ধারণক্ষমতার আরেকটি মডেলের ওয়াশিং মেশিনের দাম ২৮ হাজার টাকা থেকে কমিয়ে ২৫,২০০ টাকায় নির্ধারণ করা হয়েছে। সাত কেজি ধারনক্ষমতার ওয়াশিং মেশিনে দাম কমানো হয়েছে ২২৫০ টাকা, পাওয়া যাচ্ছে ২২,২৫০ টাকায়।

ওয়ালটন ব্র্যান্ডের মাইক্রোওয়েব ওভেনে মডেল ভেদে ৬০০ থেকে ২৬০০ টাকা পর্যন্ত দাম কমেছে। ২৫ লিটারের মাইক্রোওয়েব ওভেনের দাম ২৬০০ টাকা কমিয়ে নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ হাজার টাকায়। পাশাপাশি, ২০ লিটারের দুটি মডেলের ওভেনে দাম ৬৪০ টাকা ও ১০০০ টাকা কমিয়ে এখন রাখা হচ্ছে যথাক্রমে ৯৩৫০ ও ৮৬৫০ টাকা। ২৫ লিটারের মাইক্রোওয়েব ওভেন আগের চেয়ে ১০০০ টাকা কমে এখন পাওয়া যাচ্ছে ১১৫০০ টাকায়।

দাম কমেছে ওয়ালটনের ইলেকট্রিক ওভেনেরও। ২৮ লিটারের দুটি মডেলের ইলেকট্রিক ওভেনের দাম যথাক্রমে ২৫০ টাকা ও ৫৪০ টাকা কমিয়ে নির্ধারণ করা হয়েছে ৪৯৫০ টাকা। দাম ৩০০ টাকা কমায় ২৩ লিটারের ওভেনের দাম এখন ৪৫৫০ টাকা।

ওয়ালটন ব্র্যান্ডের দুটি মডেলের এয়ার ফ্রায়ারের দাম আগের চেয়ে ৬০০ টাকা ও ৭০০ টাকা কমে এখন বিক্রি হচ্ছে যথাক্রমে ৬৯০০ টাকা ও ৬৫৫০ টাকায়। ইলেকট্রিক প্রেসার কুকার আগের চেয়ে ২০০ টাকা কমে এখন পাওয়া যাচ্ছে ২০৫০ টাকায়। হেয়ার স্ট্রেইটনারের দাম ১৫০ টাকা কমে এখন ৮৫০ টাকা। ওয়ালটনের ইলেকট্রিক লাঞ্চ বক্সের দাম ৬০ টাকা কমিয়ে ৫৯০ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে। কফি মেকারের দাম কমেছে ২৯০ টাকা। এখন পাওয়া যাচ্ছে ১৭০০ টাকা। কেক মেকারের দাম এক হাজার টাকার পরিবর্তে করা হয়েছে ৯৫০ টাকা। স্যান্ডউইচ মেকারের দাম ১৩০ টাকা কমে পাওয়া যাচ্ছে ১৪২০ টাকায়। টোস্টার ১৩৫০ টাকার পরিবর্তে পাওয়া যাচ্ছে ১২৭০ টাকায়।

ওয়ালটন হোম ও ইলেকট্রিক্যাল এ্যাপ্লায়েন্সের প্রোডাক্ট ম্যানেজার মোঃ মাশরুর হাসান বলেন, গত বছর সকল হোম এ্যাপ্লায়েন্সের চাহিদা ও বিক্রি বেড়েছে আশাতীত। এতে করে পণ্য প্রতি উত্পাদন খরচ ও আনুষঙ্গিক খরচও কমেছে। পাশাপাশি, নতুন বছর ও বাণিজ্য মেলা উপলক্ষে গ্রাহকদের বিশেষ কিছু উপহার দিতে নতুন নতুন মডেলের পণ্য ছাড়ার পাশাপাশি কমানো হয়েছে দামও। এতে করে, ওয়ালটন ব্র্যান্ডের প্রতি গ্রহাকদের আকর্ষণ ও আস্থা আরো বাড়বে বলে মনে করছেন তিনি।

LEAVE A REPLY