রংপুরে কৃষক হত্যায় সাতজনের যাবজ্জীবন

রংপুরের মিঠাপুকুরে কৃষক বেলাল হোসেন হত্যা মামলায় ভাগ্নেসহ সাতজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার দুপুরে রংপুরের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত ২ এর বিচারক আবু জাফর মোহাম্মদ কামরুজ্জামান এ রায় দেন। সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন ভাগ্নে লাভলু, তার স্ত্রী আরজিনা বেগম, আজিজ, নেহাল উদ্দিন, ওমেদা বেগম, মশিউর রহমান ও নুরল ইসলাম। এদের মধ্যে আসামি আরজিনা বেগম ও নুরুল ইসলাম পালাতক রয়েছেন।

মামলার বিবরণ ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০০৬ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর কৃষক বেলাল হোসেন তার নিজ বাড়ি দিনাজপুর জেলার নবাবগজ্ঞ উপজেলার কুশকাদহ মণ্ডলপাড়া গ্রাম থেকে ভাগিনা লাভলুর বাড়ি রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার তরফ বাহাদি গ্রামে বেড়াতে আসেন। সেখানে রাত্রিযাপন করার একপর্যায়ে নিহত বেলাল হোসেনের ভাগ্নেবউ আরজিনা বেগম মিথ্যা অপবাদ দিয়ে চিৎকার শুরু করলে আসামি লাভলুর নেতৃত্বে আসামিরা বেলাল হোসেনকে বেদম মারধর করে।

পরের দিন সকালে বেলাল হোসেনকে গাছের সাথে বেঁধে মারধর করে। এতে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে বেলাল হোসেনকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহত বেলাল হোসেনের ছেলে আলমগীর হোসেন বাদী হয়ে ২ অক্টোবর মিঠাপুকুর থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলায় ১৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত তাদের বিরুদ্ধে এই রায় দেন।

LEAVE A REPLY