শ্রীলঙ্কায় চার জাতির টুর্নামেন্টে ভারত-পাকিস্তান

শ্রীলঙ্কায় ইন্ডিপেনডেন্স কাপে খেলতে সম্মতি জানিয়েছে টিম ইন্ডিয়া। শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আলোচনার পর এই সিদ্ধান্ত জানিয়েছে বোর্ড অব ক্রিকেট কন্ট্রোল ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই)।

শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের সভাপতি থিলাঙ্কা সুমাথিপালা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

২০১৮ সালের ০৪ ফেব্রুয়ারি মাঠে গড়াবে ইন্ডিপেনডেন্স কাপ। চার জাতির এই টুর্নামেন্টের দলগুলো হলো স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা, ভারত, পাকিস্তান আর দক্ষিণ আফ্রিকা।

শ্রীলঙ্কার ৭০তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন উপলক্ষে ইন্ডিপেনডেন্স কাপ আয়োজনের পরিকল্পনা করে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড।

পাকিস্তান ও দক্ষিণ আফ্রিকা এই টুর্নামেন্টে খেলতে আরও আগেই সম্মতি জানিয়েছিল। তবে, টিম ইন্ডিয়ার থেকে কোনো সম্মতি না মেলায় ভারত-শ্রীলঙ্কা দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীরা আলোচনায় বসেন। এরপর ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড থেকে টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়ার ব্যাপারে সবুজ সংকেত দেওয়া হলো।

লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি থিলাঙ্কা সুমাথিপালা জানান, ‘আমরা আগামী বছর শ্রীলঙ্কায় ইন্ডিপেনডেন্স কাপ আয়োজনের পরিকল্পনা করেছি। এই টুর্নামেন্টে দক্ষিণ আফ্রিকা ও পাকিস্তান অংশ নেবে বলে সম্মতি দিয়েছিল। ভারত টুর্নামেন্টে খেলতে আগে সম্মতি জানায়নি। তবে, এবার তাদের থেকেও সম্মতি পেয়ে লঙ্কান বোর্ড কিছুটা স্বস্তি পাচ্ছে। টুর্নামেন্ট নিয়ে এরই মধ্যে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কথা বলেছেন।’

গত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতের মাটিতে সবশেষ দেখা হয়েছিল টিম ইন্ডিয়া আর তাদের চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানের। সাম্প্রতিক সময়ে দু’দেশের ক্রিকেটীয় সম্পর্কতে বাজে প্রভাব ফেলেছে রাজনৈতিক ইস্যু। শ্রীলঙ্কায় ইন্ডিপেনডেন্স কাপের মধ্যদিয়ে দেখা যাবে দুই দলকে। ২০০৭ সালের পর পাকিস্তান সফরে যায়নি ভারত।

লঙ্কান বোর্ড প্রেসিডেন্ট জানিয়েছেন, ২০১৮ সালের ইন্ডিপেনডেন্স কাপ টুর্নামেন্টের পর ভারতের মাটিতে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ খেলতে যাবে শ্রীলঙ্কা।

LEAVE A REPLY