বক্তব্য পাল্টে ফেললেন কোহলি

ভারতের মাটিতে টানা দুটি সিরিজ হেরেছে সফরকারী ইংল্যান্ড। তাই কোহলি বাহিনীর আত্মবিশ্বাস তুঙ্গে থাকাটাই স্বাভাবিক। সেই আত্মবিশ্বাসের জোরেই হয়ত ম্যাচের আগের দিন কোহলি এক নবীন ইংলিশ বোলারকে নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করে বসলেন। তারপর কী হলো? সেই বোলার ১ উইকেট নিলেও বড় ব্যবধানে হারল ভারত। অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসই কি এই হারের কারণ?

বৃহস্পতিবার জাতীয় ছুটির দিন কানপুরের ক্রিকেটপ্রেমীরা যে উৎসাহ নিয়ে গ্রিনপার্কের গ্যালারি ভরিয়ে তুলেছিলেন, সেই উৎসাহে পানি ঢেলে দিয়ে ৭ উইকেটে প্রথম টি-টোয়েন্টি জিতে নিল ইংল্যান্ড। ইংলিশ বোলারদের দাপটে দেড় শ রানও করতে পারেনি কোহলি বাহিনী। অন্যদিকে মরগ্যানদের ব্যাটিং তাণ্ডবে বল হাতে পাত্তাই পেল না ভারতীয় বোলাররা। অথচ ম্যাচের আগের দিন কোহলিকে নবীন ইংলিশ বোলার বলেছিলেন, “কে মিলস? আমি ওর বোলিং খুব একটা দেখিনি। ১৫০ কিলোমিটার গতির বল আমি আগেও অনেক খেলেছি। ওটা কোনো ব্যাপার না। ”

সেই কোহলিই কানপুরে প্রথম টি-টোয়েন্টি হারার পর বললেন, “এত ভালো বল করলে তো জয়টা ওদেরই প্রাপ্য। নিখুঁত এরিয়া, সঠিক লেংথ এ সব কিছুতেই ওরা আমাদের পিছনে ফেলে দিয়েছে আজ। ”

মিলসকে নিয়ে এই মন্তব্য সেদিন ভারতীয় এবং ইংলিশ সংবাদমাধ্যমে ব্যাপক আলোচিত হয়েছিল। যেন এটা শুধু মিলসকে অবজ্ঞা করা নয়; পুরো ইংল্যান্ড টিমকে অবজ্ঞা করা। অবজ্ঞার ‘জবাব’টা বেশ ভালোভাবেই ফিরিয়ে দিয়েছে ইংল্যান্ড। কিন্তু ভারত অধিনায়কের বক্তব্যটা কেমন পরস্পরবিরোধী হয়ে গেল না?

LEAVE A REPLY