এলএনজি সরবরাহের প্রস্তাব ইন্দোনেশিয়ার

বাংলাদেশের ক্রমবর্ধমান জ্বালানী চাহিদা মোকাবেলায় ইন্দোনেশিয়া তরল প্রাকৃতিক গ্যাস (এলএনজি) সরবরাহের প্রস্তাব দিয়েছে। রবিবার সন্ধ্যায় ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রদূত আইবান বিরানতানা আতমাজা জাতীয় সংসদ ভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বিদায়ী সাক্ষাৎকালে এই প্রস্তাব দেন।

বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

বৈঠকে ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী এবং বলিষ্ঠ নেতৃত্বের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, “তাঁর সুযোগ্য নেতৃত্বে বাংলাদেশ আর্থ-সামাজিক খাতে বিস্ময়কর সাফল্য অর্জন করেছে। ” এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, “৭ শতাংশের বেশি হারে প্রবৃদ্ধি অর্জন করায় জাতিসংঘ ঘোষণা অনুযায়ী বাংলাদেশ এখন আর স্বল্পোন্নত দেশ নয়। ” বাংলাদেশী বিভিন্ন পণ্যের মানের প্রশংসা করে রাষ্ট্রদূত বলেন, “এগুলো খুবই উচ্চমানের এবং এসব পণ্য যেকোন দেশের পণ্যের সাথে প্রতিযোগিতা করার সামর্থ্য রাখে। ” এ সময় তিনি তার মেয়াদকালে দায়িত্ব পালনে সহযোগিতার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

প্রধানমন্ত্রী বিভিন্ন ক্ষেত্রে বাংলাদেশের ব্যাপক সাফল্যের উল্লেখ করে বলেন, “তাঁর সরকার দ্রুতগতিতে দেশের উন্নয়নে গত ৮ বছরে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। ” এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন “তাঁর ১৯৯৬-২০০১ মেয়াদের ইতোপূর্বেকার সরকার জনগণের কল্যাণে অনেকগুলো ভাল পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিল। কিন্তু পরবর্তী বিএনপি-জামায়াত সরকার রাজনৈতিক প্রতিহিংসাবশতঃ আওয়ামী লীগ সরকারের গৃহীত সবগুলো ভাল প্রকল্প বাতিল করে দেয়। ” শেখ হাসিনা দেশে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ প্লান্ট নির্মাণের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বলেন, “এই বিদ্যুৎ প্লান্ট চালানোর জন্য বাংলাদেশ অন্যান্য দেশের পাশাপাশি ইন্দোনেশিয়া থেকে কয়লা আমদানি করতে পারে। ”

প্রধানমন্ত্রী দু’দেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়াতে ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রদূতের প্রচেষ্টাকে স্বাগত জানান। এ সময় প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. কামাল আব্দুল নাসের চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY