রাজীবপুরে এসিল্যান্ড,ইউএনওর দায়িত্ব পালনে হিমসিম খাচ্ছেন!!

কুড়িগ্রামের রাজীবপুরে দীর্ঘ এক মাস থেকে ইউএনও তিন মাস থেকে এসিল্যান্ড না থাকায় একাই দু’পদে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে হিমসিম খাচ্ছেন রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন তালুকদার । গত বছর ডিসেম্বর মাসে উপজেলা নির্বাহী অফিসারর  বদলী জনিত কারণে অন্যত্র চলে যাওয়ায় পদটি শূণ্য হয়ে পরলে  রৌমারী ইউএনও আব্দুল্লাহ আল মামুন তালুকদার রাজীবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অতিরিক্ত দায়িত্বভার
গ্রহণ করেন।

দায়িত্বভার গ্রহণ করার পর প্রশাসনিক কর্মকান্ড পরিচালনা করতে গিয়ে ব্যস্ত হয়ে পরেন। একাই চার পদ পালন করেন তিনি। এদিকে  উপজেলাটি  ৩ ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। প্রতিদিন সাধারণ মানুষ জমা-জমি সংক্রান্তসহ বিভিন্ন অভিযোগ নিয়ে এসিল্যান্ড অফিসের দারস্থ হলেও ইউএনও (ভারপ্রাপ্ত) আব্দুল্লাহ আল মামুন তাদের সময় দিতে পারছেন না। একাই চার, দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে তিনি প্রশাসনিক কাজেও হিমসিম খাচ্ছেন।

এছাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান ও অফিস
স্টাফদের সাথে সমন্বয়হীনতার কারণে অনেক উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড মুখ থুবড়ে পড়েছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অফিসে কর্মরত স্টাফরা জানান, এসিল্যান্ট ইউএনওর দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে তাদের
সঙ্গেও অসৌজন্যমূলক আচরণ বরাবরই করছেন। রাজীবপুর উপজেলা চেয়ারম্যান জননেতা শফিউল আলম জানান, বর্তমান ভারপ্রাপ্ত ইউএনওর সাথে অফিস স্টাফ ও

সাধারণ মানুষের মাঝে যে দুরত্ব বাড়ছে তাতে উপজেলার উন্নয়ন কর্মকান্ড ব্যাহত হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। ইউএনও (ভারপ্রাপ্ত) আব্দুল্লাহ আল মামুন তালুকদার
জানান, অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন আসলে দুরহ ব্যাপার। এলাকাবাসী স্থায়িভাবে ইউএনওর শূণ্য পদটি পূরণের জন্য কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সু-দৃষ্টি কামনা করছেন।

LEAVE A REPLY