কাজের গতি আনতে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়য়ে ই-ফাইলিং কার্যক্রম

গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় কাজের গতিশীলতা, স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে ই-ফাইলিং কার্যক্রম শুরু করেছে ।

গতকাল বুধবার মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শহীদ উল্লা খন্দকার এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। এটুআই কর্মসূচি ই-ফাইলিং কার্যক্রমের প্রযুক্তিগত সহায়তা দিয়েছে।

অনুষ্ঠানে গণপূর্ত সচিব বলেন, ই-ফাইলিং ব্যবস্থায় জনগণ দ্রুত সেবা পাবে। এ পদ্ধতিতে কাজের গতিশীলতা আসবে এবং স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত হবে। জনগণ তার কাজের বিষয়ে আবেদনের অবস্থান, অগ্রগতি ইত্যাদি সম্পর্কে অনলাইনে জানতে পারবে। এতে কাজের স্বচ্ছতা নিশ্চিত হবে। ই-ফাইলিং ব্যবস্থায় নথি হারিয়ে যাওয়ার ফলে জনগণের হয়রানিও বন্ধ হবে।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের লক্ষ্য হলো জনগণের সেবা ব্যবস্থায় গতিশীলতা আনা এবং জ্ঞান-নির্ভর ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ গড়ে তোলা। এ লক্ষ্যে তথ্যপ্রযুক্তি সেবাকে ইউনিয়ন পর্যন্ত সম্প্রসারণ করা হয়েছে। প্রযুক্তি উদ্ভাবনের সাথে সাথে বিশ্বব্যাপী এর প্রতিযোগিতা চলছে। এ প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশও সামিল হয়েছে এবং এগিয়ে যাচ্ছে।

গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের আবাসন পরিদপ্তরের সরকারি বাসা ছাড়ার অনাপত্তি সনদ অনলাইনে দেওয়ার ব্যবস্থা অনেক আগেই চালু হয়েছে। মন্ত্রণালয়ের অন্যান্য সংস্থাও বিভিন্ন কার্যক্রমে অনলাইন সেবা ব্যবস্থা চালু করেছে।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. আখতার হোসেন, এস এম আরিফ-উর-রহমান, মো. আবুল কাশেম, ড. মো. আফজাল হোসেনসহ সকল কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

LEAVE A REPLY