খাগড়াছড়ি জেলা সদরের শালবন এলাকায় আওয়ামী লীগ সমর্থক ও পৌরসভার মেয়র রফিকুল আলম সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে নারীসহ ছয়জন আহত হয়েছে।
রবিবার, ০৫ জানুয়ারি রাত ৯টার দিকে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
আহতদের খাগড়াছড়ি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরে গুরুতর আহত চারজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়। আহতের মধ্যে নারীসহ চারজন আওয়ামী লীগ সমর্থক ও দুইজন মেয়র সমর্থক বলে জানা গেছে।
চমেকে চিকিৎসাধীনরা হলেন- আওয়ামী লীগ সমর্থক মোসলেম উদ্দিন (৩৫), বিল্লাল হোসেন (৩৫), মেয়র সমর্থক খায়রুল আলম (১৫) ও রনি (১৮)। খাগড়াছড়ি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দু’জন হলেন- আওয়ামী লীগ নেতা ইসলাম উদ্দিনের স্ত্রী জোৎস্না (৩৫) ও মোসলেম উদ্দিনের স্ত্রী সাফিয়া বেগম (৩০)।
খাগড়াছড়ি সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারেক মুহাম্মদ আব্দুল হান্নান জানান, এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরেই শালবনসহ খাগড়াছড়ি পৌর এলাকায় উভয়পক্ষের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল।
এর আগে ১৯ জানুয়ারি, বৃহস্পতিবার মেয়র সমর্থকদের হামলায় জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক নির্মলেন্দু চৌধুরী গুরুতর আহত হন।
পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। জড়িতদের ধরতে এলাকায় অভিযান চলছে বলেও জানান তিনি।
উল্লেখ, পৌরসভার মেয়র রফিকুল আলম হলেন খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের সাময়িক বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক জাহেদুল আলমের ছোট ভাই। তবে বিগত পৌরসভা নির্বাচনে রফিকুল আলম স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিজয়ী হওয়ার পর থেকে খাগড়াছড়িতে আওয়ামী লীগের সঙ্গে মেয়র সমর্থকদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে।

LEAVE A REPLY