ওয়েস্টইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেকেই জানান দিয়েছিলেন অস্তিত্ব। আর পরবর্তী ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে গুড়িয়ে দিয়ে রেকর্ড গড়ে বিশ্বক্রিকেটকে চমকে দিয়েছিলেন নাটোরের ছেলে তাইজুল ইসলাম।

ক্যারিবিয়ানদের বিপক্ষে সেন্ট ভিনসেন্ট টেস্টে পেয়েছিলেন ৫ উইকেট। টেস্ট অভিষেকে ৫ উইকেট পাওয়া বাংলাদেশী বোলারদের মধ্যে তাইজুল ছ-নম্বরে। কে জানত তখন, আর এক টেস্ট পরেই নয়া ইতিহাস গড়বেন তিনি!

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঢাকা টেস্টের প্রথম ইনিংসে না পারলেও দ্বিতীয় ইনিংসে ভেলকি দেখান তাইজুল। স্পিন ঘূর্ণিতে একাই তিনি তুলে নেন ৮ উইকেট। আজীবনের জন্য উঠে যান রেকর্ড পাতায়। সেই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অভিষেক ওয়ানডে ম্যাচে প্রথম বোলার হিসেবে হ্যাটট্রিকও গড়েন তিনি।

৭ ফেব্রুয়ারি এই রেকর্ডবয় তাইজুল ইসলামের জন্মদিন। বিশেষ এইদিনে তাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছে ক্রিকেটের আন্তর্জাতিক নিয়ন্ত্রক সংস্থা-আইসিসি।

সংস্থাটির অফিসিয়াল ফেসবুক পাতা থেকে তাইজুলকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বলা হয়, ‘তিনি এমন ক্রিকেটার যিনি বাংলাদেশী বোলারদের মধ্যে বেস্ট বোলিং ফিগার ধারণ করছেন। মিরপুরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্টে মাত্র ৩৯ রান দিয়ে তিনি আট উইকেট নিয়ে রেকর্ড গড়েন। একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে একই ভেন্যুতে ওয়ানডে অভিষেকে প্রথম বোলার হিসেবে হ্যাটট্রিক গড়েন তিনি। শুভ জন্মদিন তাইজুল ইসলাম।’

LEAVE A REPLY