২০১১ সালের পৌর নির্বাচনে কোটচাঁদপুরের সাবেক পৌর মেয়রের পদ ৬ বছর পর অবৈধ ঘোষণা করেছে আদালত।
২০১১ সালের ১৩ জানুয়ারী অনুষ্ঠিত পৌর নির্বাচনে সালাউদ্দীন বুলবুল সিডলের বিরুদ্ধে হলফ নামায় তথ্য গোপনের অভিযোগে আনে মানবধিকার উন্নয়ন উদ্যোগ ফাউন্ডেশন। বিষয়টি নিয়ে ২৪ জানুয়ারী ২০১১ সালে এ বিষয়ে স্থানীয় শাখা সভাপতি খায়রুল হোসেন সাথী প্রেসক্লাব যশোহরে সংবাদ সম্মেলন করেন। ওই সংবাদ সম্মেলনের অভিযোগকে চ্যালেঞ্জ করে ২৬ জানুয়ারী সালাউদ্দীন বুলবুল সিডল পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করেন নিজ বাস ভবনে।

পরবর্তীতে মানবধিকার উন্নয়ন উদ্যোগ ফাউন্ডেশন সালাউদ্দীন বুলবুল সিডলের বিরুদ্ধে হলফ নামায় তথ্য গোপনের অভিযোগে প্রধান নির্বাচন কমিশনে আবেদন করে। কিন্তুু কোন প্রতিকার না পাওয়ায় ২০ ফেব্রুয়ারী ২০১১ সালে ঝিনাইদহ যুগ্ম জেলাজজ ১ম আদালত ও নির্বাচনী ট্রাইব্রনাল আদালতে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী মোঃ জাহিদুল ইসলাম জাহিদ এক মামলা দায়ের করেন।

মামলা নং -০১/১১। দীর্ঘ ৬ বছর পর গত ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৭ তারিখে যুগ্ম জেলাজজ ১ম আদালত-এর বিচারক মোঃ সালেহুজ্জামান এক রায়ে এস কে এম সালাহউদ্দীন বুলবুল সিডলের মেয়র পদ অবৈধ ঘোষনা করেন। বাদী পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করে অ্যাড. আত্তাপ হোসেন ও অ্যাড. আবু রওশন রিপন। বিবাদী পক্ষে ছিলেন অ্যাড. বিকাশ কুমার ঘোষ।

LEAVE A REPLY