মৃত সোনিয়া আক্তারের শ্বশুর আবদুস সালাম গণমাধ্যমকে বলেন, গত ৪-৫ বছর আগে পারিবারিকভাবে তার ছেলে রফিকুল ইসলামের সঙ্গে সোনিয়ার বিয়ে হয়। তারা কদমতলীর রায়েরবাগ ব্লক-সি এলাকায় টিনশেড একটি বাড়িতে ভাড়া থাকত। পারিবারিক কলহের জের ধরে গতরাতে সোনিয়া বিষপান করে। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় ঢামেক হাসপাতালে নেওয়া হলে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে, মৃত সোনিয়ার চাচা কামাল হোসেন জানান, সোনিয়ার শ্বশুর প্রায়ই বাসার বিভিন্ন জিনিসপত্র বিক্রি করে দিতেন। এতে সোনিয়া বাধা দিলে স্বামী ও শ্বশুর মিলে তাকে মারধর করতেন। সোনিয়াকে জোর করে বিষপানে আত্মহত্যা করানো হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

কদমতলী থানার এসআই এনায়েত করিম জানান, সোনিয়ার শ্বশুর আবদুস সালাম ও স্বামীর ভাই রুবেলকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। সোনিয়ার স্বামী রফিকুল ইসলাম পলাতক রয়েছেন।

LEAVE A REPLY