বিপাকে শাহরুখ খান। তাঁর বিরুদ্ধে সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করা, বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করা এবং বেআইনি জমায়েতের অভিযোগ এনে অভিযোগ দায়ের করেছেন কোটা স্টেশনের এক চা বিক্রেতা বিক্রম সিং। কয়েকদিন আগে মুক্তি পেয়েছে শাহরুখের ফিল্ম ‘‌রইস’‌। সেই ফিল্মের প্রচারে আগস্ট ক্রান্তি এক্সপ্রেসে করে মুম্বই থেকে দিল্লি গেছিলেন শাহরুখ। ২৪ জানুয়ারি ভোর পাঁচটায় কোটা স্টেশনে শাহরুখের ট্রেন ঢুকতেই শুরু হয়ে যায় প্রবল হুড়োহুড়ি। বিক্রম বলেছেন, ‘‌শাহরুখ ট্রেন থেকে নামেননি। কিন্তু কামরার দরজার সামনে দাঁড়িয়ে ভক্তদের উদ্দেশে হাত নাড়িয়েছেন এবং উপহার ছুড়ে দিয়েছেন। শাহরুখে দেওয়া উপহার নিতে চরম বিশৃঙ্খলা শুরু হয়ে যায়। এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল, যে কেউ পদপিষ্ট হতে পারতেন। উত্তেজিত জনতা আমার দোকান থেকে টাকাপয়সাও ছিনিয়ে নিয়েছে। তখন কাউকে সামলানোর মতো পরিস্থিতি ছিল না।’‌ কোটার রেল আদালতের এই অভিযোগ করেছেন বিক্রম। বিষয়টির তদন্তের জন্য কোটা জিআরপি–কে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। কোটা জিআরপি–র  সুপারিন্টেন্ডেন্ট ওম প্রকাশ বলেছেন, ‘‌শুধু শাহরুখ নয়, আমরা তাঁর প্রচার দলের সকলের বিরুদ্ধেই তদন্ত শুরু করেছি। সরকারি সম্পত্তি নষ্ট হওয়ার বিষয়টিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তাঁর বিরুদ্ধে ১৪৭, ১৪৯, ১৬০, ৪২৭, ১২০ (‌খ),  ১৪৫ এবং ১৪৬ ধারায় মামলা করা হয়েছে। রইসের সময়‌ শাহরুখের ট্রেন যাত্রা নিয়ে আগেই বিতর্ক শুরু হয়েছিল। বরোদা স্টেশনে শাহরুখকে দেখতে গিয়ে পদপিষ্ট হয়ে মৃত্যু হয়েছিল এক ভক্তের।

LEAVE A REPLY