মাঠে পারফরম্যান্স যেমন চমকপ্রদ, মাঠের বাইরেও তেমনই নজর কেড়ে নিচ্ছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। পারফরম্যান্সের সঙ্গেই পাল্লা দিয়ে চড়চড় করে বাড়ছে তাঁর ব্র্যান্ড ভ্যালু।
স্পোর্টস মার্কেটিং এগজিকিউটিভরা বলছেন, ভারতের একদিনের ও টি-২০ দলের অধিনায়ক নির্বাচিত হওয়ার পর বিরাটের ব্র্যান্ড ভ্যালু ২০ থেকে ২৫ শতাংশ বেড়ে গিয়েছে। পার্পল প্যাচ বজায় থাকলে ব্র্যান্ড ভ্যালুও বাড়বে। খুব সম্প্রতি কোহলি টেস্টেও টিম ইণ্ডিয়াকে নেতৃত্ব দেয়া শুরু করেছে।
২০১৬ সালের অক্টোবর মাসের রিপোর্ট অনুযায়ী, বিরাটের ব্র্যান্ড ভ্যালু ৯২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। ভারতের সেলেবদের মধ্যে এক্ষেত্রে তাঁর আগে আছেন শুধু শাহরুখ খান। বলিউড বাদশার ব্র্যান্ড ভ্যালু ১৩১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার।
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এখন শাহরুখের থেকে খুব বেশি পিছিয়ে নেই বিরাট। তিনি ভবিষ্যতে শাহরুখকে টপকেও যেতে পারেন।
একটি স্পোর্টস মার্কেটিং সংস্থার কর্ণধার তুহিন মিশ্র বলেছেন, একজন ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডারের পারফরম্যান্স এবং অবস্থান তাঁর ব্র্যান্ড ভ্যালু বাড়িয়ে দেয়। টেস্ট দলের অধিনায়ক হওয়ার সময় বিরাটের যা ব্র্যান্ড ভ্যালু ছিল, একদিনের ও টি-২০ দলের অধিনায়ক হওয়ার পর তা ২০-২৫ শতাংশ বেড়ে গিয়েছে।
 এখন বিরাট ২০টি পণ্যের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডার কোহলি। এছাড়া তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের স্কিল ইন্ডিয়া প্রকল্পেরও শুভেচ্ছাদূত নির্বাচিত হয়েছেন।
মার্কেটিং বিশেষজ্ঞদের মতে, ধারাবাহিকভাবে ভাল পারফরম্যান্সের জন্যই বিরাটের ব্র্যান্ড ভ্যালু বেড়ে চলেছে। তিনি অদূর ভবিষ্যতে ভারতের এনডোর্সমেন্টের ইতিহাসে সবচেয়ে দামী ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডার হওয়ার দিকে এগিয়ে চলেছেন।

LEAVE A REPLY