জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মের্কেল বৃহস্পতিবার দুই দিনের সফরে মিশর ও তিউনিসিয়ায় যাচ্ছেন। উত্তর আফ্রিকায় সংঘাতপূর্ণ লিবিয়া থেকে ইউরোপে অভিবাসন প্রত্যাশীদের ঢল সীমিত রাখতে চাপ প্রয়োগই তার এ সফরের লক্ষ্য।
২০১১ সালে মোয়াম্মার গাদ্দাফি ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর থেকেই একটি জাতীয় সরকার গঠন করা নিয়ে দেশটিতে চরম বিশৃঙ্খলা দেখা দেয়। আর এ কারণেই দেশটি থেকে ইউরোপের দেশগুলোতে যেতে চাওয়া লোকের সংখ্যা অনেক বেড়ে যায়।
মের্কেল জার্মানিতে আসতে থাকা অভিবাসন প্রত্যাশীদের সংখ্যা হ্রাসের ব্যাপারে অনেক চাপের মুখে রয়েছেন। ২০১৫ সাল থেকে দেশটি দশ লাখেরও বেশী শরণার্থী গ্রহণ করেছে।
তার সরকার সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ ও অভিবাসী প্রত্যাবসান জোরদার করতে মধ্যপ্রাচ্যের রাষ্ট্রসমূহ ও মিশরের প্রতি আহবান জানিয়েছে।
মের্কেল প্রথমে মিশর যাবেন এবং সেখানে প্রেসিডেন্ট আব্দেল ফাত্তাহ আল-সিসির সঙ্গে সাক্ষাত করবেন। পরে সেখান থেকে শুক্রবার তিউনিসিয়ায় দেশটির প্রেসিডেন্ট বেজি কাইদ ইসাবসির সঙ্গে সাক্ষাত করবেন তিনি।

LEAVE A REPLY