আগামী ১৫ দিনের মধ্যে হাইকোর্টের সামনে বসানো গ্রিক দেবীর মূর্তি অপসারণ না করলে হাইকোর্ট ঘেরাওয়ের হুঁশিয়ারি দিয়েছে বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ। ধর্মভিত্তিক মুসলিম দলগুলোকে নিয়ে এ কর্মসূচি পালন করা হবে বলে জানিয়েছেন তারা।

আজ শনিবার (৪ মার্চ) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধনে এমন ঘোষণা দেয় সংগঠনটি।

আওয়ামী ওলামা লীগ অভিযোগ করে বলেছেন, হাইকোর্টের সামনে মূর্তিটি বসিয়েছেন প্রধান বিচারপতি।

এদিকে সংগঠনটির সভাপতি মুহাম্মদ আখতার হুসাইন বুখারী বলেছেন, মূর্তি যেই বসাক না কেন, এর দায়ভার পুরোটাই সরকারের ওপর বর্তায়। এটি অপসারণের জন্য সরকারকে এগিয়ে আসতে হবে। আগামী ১৫ দিনের মধ্যে এই মূর্তি অপসারণ না করলে হাইকোর্ট ঘেরাও করা হবে।

17022277_1036912216413197_4572301278262680601_n

 

অন্য বক্তাদের মন্তব্য, প্রধান বিচারপতিকে গ্রেফতার করে রিমাণ্ডে নিলেই মূর্তি বসানোর আসল রহস্য বের হয়ে আসতে পারে। মূর্তি অপসারণের আলটিমেটাম দেওয়া ছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়নে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন ২০১৬ অবিলম্বে বাতিল করতে হবে বলেও দাবি জানায় ওলামা লীগ।

এদিকে পহেলা বৈশাখে সারাদেশে সরকারিভাবে মঙ্গল শোভাযাত্রার আয়োজনের ঘোষণা দিয়েছেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। এটিও বাতিলের দাবি জানানো হয়েছে ওলামা লীগের মানববন্ধনে।

 

বক্তারা বলেন, এ সিদ্ধান্ত মুসলমানদেরকে হিন্দুদের উৎসব পালনে বাধ্য করার শামিল। অবিলম্বে এটি বাতিল করতে হবে। কারণ ‘পহেলা বৈশাখ’ এবং ‘মঙ্গল শোভাযাত্রা’ বাঙালি বা ৯৮ ভাগ মুসলমানদের সংস্কৃতি নয়, এগুলো হিন্দুদের ধর্মীয় সংস্কৃতি।

মানববন্ধনে আরও ছিলেন ওলামা লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্জ কাজী মাওলানা মুহম্মদ আবুল হাসান শেখ শরীয়তপুরী, সম্মিলিত ইসলামী গবেষণা পরিষদের সভাপতি হাফেজ মাওলানা মুহম্মদ আব্দুস সাত্তার প্রমুখ।

LEAVE A REPLY