বাংলাদেশের বিপক্ষে শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশে একমাত্র পরিচিত মুখটি ছিল দিনেশ চান্ডিমালের। আর মুশফিক বাহিনীকে  দারুণ জবাব দিলেন লঙ্কান এ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান। প্রস্তুতি ম্যাচে লঙ্কান বোর্ড একাদশের ৭ খেলোয়াড়ের বয়স ২০ বছরের আশপাশে। আর সাবলীল ব্যাটিংয়ে লঙ্কান তরুণ দলটি বার্তা দিলো টাইগার বোলারদের। টেস্ট সিরিজের আগে দুইদিনের প্রস্তুতি ম্যাচে ৩৯১/৭ সংগ্রহ নিয়ে ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ। স্বেচ্ছা অবসরে (রিটায়ার্ড আউট) ক্রিজ ছাড়ার আগে ওপেনার তামিম ইকবাল করেন সর্বোচ্চ ১৩৬ রান। ১৮২ বলের ইনিংসে ৯টি চার ও ৭টি ছক্কা হাঁকান তামিম। আর জবাবে গতকাল  শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশ দুইদিনের ম্যাচের দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষ করে ৪০৩/৭ সংগ্রহ নিয়ে। লঙ্কান জাতীয় দলের ব্যাটসম্যান দিনেশ চান্ডিমাল ইনিংস শেষে অপরাজিত থাকেন ১৯০ রানে। ২৫৩ বলের ইনিংসে চান্ডিমাল হাঁকান ২১টি চার ও ৭টি ছক্কা। এতে বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা বোর্ড একাদশ প্রস্তুতি ম্যাচ শেষ হয়  ড্রতে। কলম্বোর পার্শ্ববর্তী মোরাতোয়া ভেন্যুতে বল হাতে সুবিধা করতে পারেননি টাইগার স্পিনাররা। লঙ্কান একাদশের পতন হওয়া ৭ উইকেটের ছয়টিই ভাগাভাগি করেন পেসাররা। বল হাতে ১৩ ওভারের স্পেলে ৬৮ রানে এক উইকেট নেন অফস্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ। দেশসেরা বাঁ-হাতি স্পিনার সাকিব আল হাসান ১১ ওভারের স্পেলে ৪৯ রানে থাকেন উইকেটশূন্য। অপর বাঁ-হাতি স্পিনার তাইজুল ইসলামের চিত্রটা করুণ। ভারতের বিপক্ষে সদ্য হায়দরাবাদ টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৪৭ ওভারের স্পেলে ১৫৬ রানে তিন উইকেট নিয়ে বাংলাদেশ দলে সেরা নৈপুণ্যটা ছিল বাঁ-হাতি স্পিনার তাইজুলের। তবে গতকাল মোরাতোয়ায় ১২ ওভারের স্পেলে উইকেটশূন্য তাইজুল ইসলাম দেন ৭৯ রান। ইনিংসে তাইজুলের ইকোনমি গড় ৬.৫৮।
বাংলাদেশের বল হাতে ১১ ওভারের স্পেলে ৪১ রানে তাসকিন আহমেদ নেন তিন উইকেট। আর ১২ ওভারের স্পেলে ২৮ রানে দুই উইকেট নেন মোস্তাফিজুর রহমান। এক উইকেট নেন অকেশনাল পেসার সৌম্য সরকার। দিনের শুরুতে বল হাতে ২৯ রানে তিন উইকেট তুলে নিয়ে স্বাগতিকদের চাপে ফেলেন টাইগাররা। তবে পরে ঘুরে দাঁড়ায় শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশ। পরের টানা পাঁচ উইকেট জুটিতেই ৫০+ রানের কৃতিত্ব দেখান লঙ্কানরা। চতুর্থ উইকেটে ৮১ রানের জুটি গড়ে চাপ সামাল দেন চান্ডিমাল ও রোশেন সিলভা। পঞ্চম, ষষ্ঠ ও সপ্তম উইকেটে যথাক্রমে ৫৩, ৫৬ ও ৭২ রানের জুটি গড়ে লঙ্কানরা। আর লঙ্কান একাদশের অষ্টম উইকেট জুটির দৃঢ়তায় দিনের শেষভাগে মাঠে গলদঘর্ম  সময় কাটে মুশফিক বাহিনীর। ৯ নম্বরে ব্যাট হাতে ব্যক্তিগত ৫০ রানে অপরাজিত থাকেন চামিকা করুনারত্নে। অষ্টম উইকেটে চান্ডিমাল-করুনারত্নে গড়েন অবিচ্ছিন্ন ১১২ রানের জুটি।
মোরাতোয়ায় আগের দিনের ৩৯১/৭ সংগ্রহ নিয়ে গতকাল সকালে ইনিংস ঘোষণা করেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম। আর ইনিংসের মাত্র চতুর্থ ওভারে জোড়া উইকেট খোয়ায় লঙ্কান একাদশ। দলীয় ১২ রানে তাসকিনের ডেলিভারিতে উইকেট খুইয়ে সাজঘরে ফেরেন লঙ্কান ওপেনার আভিস্কা ফারনানদো ও ওয়ানডাউন ব্যাটসম্যান ইরোশ সামারাসুরিয়া। ১২তম ওভারে লঙ্কান অপর ওপেনার রণ চন্দ্রগুপ্তকে নিজের বলে ফিরতি ক্যাচে সাজঘরে ফেরান মোস্তাফিজ। মোরাতোয়া মাঠে দুইদিনের প্রস্তুতি ম্যাচে টস জিতে বাংলাদেশ দলকে ব্যাটিংয়ে পাঠান শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশের অধিনায়ক দিনেশ চান্ডিমাল। দারুণ সেঞ্চুরিতে ১৩৬ রানের ইনিংস খেলে স্বেচ্ছায় অবসরে (রিটায়ার্ড আউট) যান টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল। ওয়ানডাউন ব্যাটসম্যান মুমিনুল হক স্বেচ্ছা অবসরে ক্রিজ ছাড়েন ব্যক্তিগত ৭৩ রানে। প্রস্তুতি ম্যাচে উইকেটরক্ষকের দায়িত্ব সামলান লিটন কুমার দাস। আর ব্যাট হাতে ৫৭ রানে অপরাজিত থাকেন লিটন। প্রস্তুতি ম্যাচে লিটনের ছিল দুটি ডিসমিসাল। এতে তার একটি ক্যাচ ও অপরটি স্টাম্পিং। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে মুশফিকুর রহীমের বদলে উইকেটরক্ষকের দায়িত্ব সামলাবেন লিটনই। দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্ট গল মাঠে শুরু হবে আগামী ৭ই মার্চ।
সংক্ষিপ্ত স্কোর
টস: শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্ট একাদশ, ফিল্ডিং
বাংলাদেশ ১ম ইনিংস: ৯০ ওভার; ৩৯১/৭ (তামিম রিটায়ার্ড হার্ট ১৩৯, মুমিনুল রিটায়ার্ড হার্ট ৭৩, লিটন দাস ৫৭*, মাহমুদুল্লাহ ৪৩, সাকিব ৩০, মুশফিক ২১, করুনারত্নে ৩/৬১)।
শ্রীলঙ্কা একাদশ ১ম ইনিংস: ৯০ ওভার; ৪০৩/৭ (চান্ডিমাল ১৯০*, করুনারত্নে ৫০*, রোশেন সিলভা ৩৮, তাসকিন ৩/৪১, মোস্তাফিজ ২/২৮, সৌম্য ১/৫৩, মিরাজ ১/৬৮)।
ফল: ড্র

LEAVE A REPLY