সবাইকে চমকে দিয়ে যমজ সন্তানের বাবা বা ‘সিঙ্গেল ফাদার’ হলেন বলিউড নির্মাতা-প্রযোজক করণ জোহর। দুই সন্তানের মধ্যে একজন ছেলে ও অন্যটি মেয়ে সন্তান। করণ ইতোমধ্যে নামও রেখেছেন সন্তানদের, ইয়াশ ও রুহি।

ইয়াশ নাম রাখা হয়েছে করণের প্রয়াত বাবার নাম থেকে এবং রুহির নাম রাখা হয়েছে মায়ের ‘হিরু’ নামের অংশ থেকে নিয়ে।

ভারতের বিএমসি স্বাস্থ কর্মকর্তা এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। যমজ শিশুর ডেলিভারিতে চিকিৎসক হিসেবে ছিলেন ড মাকরান্দ মাসরানি। এই হাসপাতালেই শাহরুখের তৃতীয় সন্তান আব্রামের জন্ম হয়েছিল। আব্রামকেও সারোগেসির সাহায্যে পৃথিবীতে আনা হয়েছে।

মুম্বাইয়ের আন্ধেরির মাসরানি হাসপাতালে গত ৭ ফেব্রুয়ারি করণের এই দুই সন্তানের জন্ম হয়েছে বলেও খবর প্রকাশিত হয়েছে। বিএমসি নির্বাহী স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ড. পদ্মজা কেশকার বলেন, ‘শুক্রবার বাচ্চাদের জন্ম নিবন্ধন সম্পন্ন হয়েছে’।

উল্লেখ্য, করণ জোহর এর আগেও বহু সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন যে তিনি বাবা হতে চান। কিছুদিন আগে নিজের অটোবায়োগ্রাফিতে ‘দ্য আনসুইটেবল বয়’-তেও তিনি লিখেছিলেন যে তিনি সন্তান দত্তক নিতে চান বা সারোগেসির মাধ্যমে সন্তানের বাবা হতে চান।

করণ লিখেছিলেন, ‘আমি জানিনা আমি কি করতে যাচ্ছি কিন্তু আমার বাবা হতে ইচ্ছা করছে। আমি জানিনা এটা কি করে হবে, কিন্তু আমি চাই কারণ আমি অনেক ভালোবাসা দিতে চাই’। যদিও নিজের সন্তান হওয়ার খবর নিয়ে নিজে এখনো প্রকাশ করেননি করণ জোহর।

তুষার কাপুরের পর করণ বলিউডের দ্বিতীয় ‘সিঙ্গেল ফাদার’, যিনি সরোগেসির মাধ্যমে যমজ সন্তানের বাবা হলেন। তুষার কাপুরও একটি ছেলে সন্তানের বাবা হন সরোগেসির মাধ্যমে।

উল্লেখ্য, বন্ধ্যত্ব বা স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে মূলত সরোগেসির পদ্ধতির সাহায্য নেয়া হয়। শারীরিক সমস্যায় ‘মা’ সরাসরি সন্তান জন্মদানে ঝুঁকিতে থাকলে তাদের জন্য এ পদ্ধতি নিরাপদ ও কার্যকর।

স্বামী-স্ত্রীর শুক্রাণু ও ডিম্বাণু থেকে ধারণ করা হলেও তৃতীয় এক নারীর গর্ভে (সরোগেসি প্রক্রিয়ায় )নিজেদের তৃতীয় সন্তান নেয়ার পদ্ধতির নামই সরোগেসি।

LEAVE A REPLY