ঢাকাই ছবির প্রিয়দর্শিনীখ্যাত অভিনেত্রী মৌসুমী। চলচ্চিত্রে মাঝে কম দেখা গেলেও আবার সরব হয়েছেন তিনি। নতুন বেশকিছু কাজে হাত দিয়েছেন এ তারকা। কয়েকদিন আগে মুক্তিযুদ্ধকালীন দুই তরুণ-তরুণীর ভালোলাগা, ভালোবাসা আর পাওয়া না-পাওয়ার গল্প নিয়ে ‘সুজয়ের চিঠি’ নামে একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। রাহাত এইচ চৌধুরীর রচনায় এটি পরিচালনা করেছেন ফাহমিদা প্রেমা। ইউটিউবে এটি প্রচারের পর বেশ সাড়া  পেয়েছেন মৌসুমী। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এবারই প্রথম স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে কাজ করলাম। এটি প্রচারের পর থেকেই বেশ সাড়া পেয়েছি। আমাদের সব কাজ দর্শকের জন্য। তারা যখন এটা দেখে ভালো কিছু বলেন তখনই একজন অভিনয় শিল্পী হিসেবে সার্থকতা খুঁজে পাওয়া যায়। দারুণ একটি গল্প ছিল এটি। এ কাজের বাইরে মৌসুমী বর্তমানে সাভারে মনতাজুর রহমান আকবরের ‘দুলাভাই জিন্দাবাদ’ ছবির সেটে কাজ করছেন। এখানে তার বিপরীতে অভিনয় করছেন ডিপজল। সেখানে কাজ শেষ করে আবার এ মাসের মাঝামাঝি সময়ে এ কে সোহেলের ‘পবিত্র ভালোবাসা’ ছবির সেটে কাজ করবেন তিনি। তাই বলা যায় বছরের শুরু থেকেই আবারো সরব হয়েছেন এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী। মৌসুমী বলেন, ‘দুলাভাই জিন্দাবাদ’ ছবিটি এক কথায় একটি গ্রামের পরিবারের পরিচ্ছন্ন গল্পের ছবি। পাশাপাশি ছবির গল্পে সমাজের কিছু প্রতিবন্ধকতার চিত্রও ফুটিয়ে তুলছেন পরিচালক। এখানে আমার চরিত্রের নাম জোসনা। আমি, ডিপজল ভাই, মিম, বাপ্পি সব মিলে খুব ভালো একটা কাজ হচ্ছে। দর্শক ছবিটি পছন্দ করবেন। পাশাপাশি ‘পবিত্র ভালোবাসা’ ছবিতে ব্যতিক্রম একটি চরিত্রে অভিনয় করছি। এর আগে একই পরিচালকের ‘খায়রুন সুন্দরী’ ছবিটি বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। হিন্দু-মুসলিমের প্রেমের কাহিনী নিয়ে গড়ে উঠেছে এ ছবির গল্প। ছবিতে আমার বিপরীতে রয়েছেন ফেরদৌস। এ ছবির বাইরে মাঝে মৌসুমী বদিউল আলম খোকনের ‘হারজিৎ’ ছবির কাজ করেছেন। এ ছবির বাকি কাজ শিগগিরই শুরু হবে। আর সম্প্রতি পরিচালক পি এ কাজল মৌসুমীকে বাংলাদেশ মহিলা ফুটবল দল নিয়ে ‘আমরাও পারি’ নামের একটি ছবিতে কাজের প্রস্তাব দেন। এ প্রসঙ্গে মৌসুমী বলেন, এ ছবিতে ফুটবল দলের ম্যানেজারের চরিত্রে কাজের প্রস্তাব পেয়েছি। শুটিং শিডিউল নিয়ে এখনও চূড়ান্ত কথা হয়নি। তবে ফুটবল আমার প্রিয় খেলা। সবকিছু মিললে ছবিটি করার ইচ্ছে রয়েছে।

LEAVE A REPLY