ক্রীড়া ডেস্কঃ
বাংলাদেশ সব ধরনের পরিস্থিতির জন্য তৈরি হয়ে এসেছে। পাঁচ পেসার, তিন স্পিনার থাকায় উইকেট অনুযায়ী একাদশ গঠনে কোনো সমস্যা নেই দলটির। ম্যাচের সকালে হয়তো পেসার শুভাশীষ রায় বা বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল ইসলামের যে কোনো একজনকে বেছে নিতে হবে অতিথিদের।

অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম বিশেষজ্ঞ ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলায় লিটন দাসের একাদশে ফেরা নিশ্চিত। তাকে জায়গা দিতে গিয়ে বাদ পড়তে পারেন পাঁচ টেস্ট খেলা সাব্বির রহমান।

মুস্তাফিজুর রহমান চোট কাটিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তৈরি টেস্টেও খেলতে। আরেক পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বির জায়গায় দল ফিরতে পারেন তিনি। ভারতের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে খেলা দল থেকে হতে পারে এই দুটি পরিবর্তন।

মোরাটুয়ায় প্রস্তুতি ম্যাচেই মিলেছিল বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশের আভাস। পেসার শুভাশীষসহ ১২ জনকে খেলিয়েছিল অতিথিরা। সেই দল থেকে এই পেসারের বাদ পড়া অনেকটাই নিশ্চত। তবে একাদশ ঠিক করার জন্য শেষ সময় পর্যন্ত অপেক্ষার কথাই বললেন অধিনায়ক।

“আমরা দুদিন আগেও দেখেছি উইকেটে ঘাস আছে। এখন ততটা নেই। আজ আমরা অনুশীলন করব। কালকে সকালেও উইকেট দেখব। তারপর একাদশ ঠিক করবো।”

মোটামুটি সব ঠিক হয়েই আছে। সকালে এসে উইকেট দেখে ঠিক করা হবে দুই না তিন পেসার খেলানো হবে। তিন পেসারের দিকে হাঁটলে বাদ পড়তে পারেন তাইজুল।

“উইকেট দেখে ঠিক করবো কোন পেসার, কয়জন পেসার খেলাতে পারি। স্পিনার না পেসার কারা বেশি সুবিধা পাবে সেটা দেখে আমরা একাদশ সাজাব। আমাদের পর্যাপ্ত সোর্স আছে। আমরা সবাই খেলার জন্য প্রস্তুত।”

ব্যাটিং বান্ধব উইকেট না বানালে বরাবরই গলের উইকেটে সহায়তা পেয়ে থাকেন স্পিনাররা। স্বাগতিক দলের অধিনায়ক রঙ্গনা হেরাথও দিলেন চতুর্থ দিন থেকে বল ঘোরার আভাস। তেমন উইকেট পেলে তিন স্পিনার নিয়েই খেলবে বাংলাদেশ।

LEAVE A REPLY