ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলায় আজ শুক্রবার ভোরে একটি পিকনিকের বাসের সঙ্গে সিমেন্টবোঝাই ট্রাকের সংঘর্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন। আহত ব্যক্তিদের সবাই বাসযাত্রী। তাঁদের মধ্যে ১৩ জনকে দাগনভূঞা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, আহত ব্যক্তিদের বাড়ি নোয়াখালীর মাইজদীতে। আজ ভোরে নোয়াখালী জেলা সদরের মাইজদী থেকে স্থানীয় ওয়ার্কশপ মালিক সমিতির সদস্যরা একটি বাসে করে পিকনিক করতে রাঙামাটি যাচ্ছিলেন। বাসটি ভোর পাঁচটার দিকে ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার তুলাতলি বাজারের কাছাকাছি পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি সিমেন্টবোঝাই ট্রাকের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। বাসটি ছিটকে সড়কের বাইরে উল্টে পড়ে। এতে নারী, শিশুসহ অন্তত ২০ জন আহত হন।

আহত ব্যক্তিদের মধ্যে মনোয়ারা বেগম (৩০), বিকাশ (৪০), শাহজাদা (৩১), কাউছারা বেগম (২৫), মো. জাহিদ (১৩), লক্ষ্মীরাণী সাহা (৩০), পলি বেগম (১৯), মো. নাহিদ (৪), মো. আলী (৪ মাস), মো. হাসান (২৩), নাজমা বেগম (১৮), শাহ আলম (৪০), মো. নাজিম উদ্দিনের (৩০) নাম জানা গেছে।

স্থানীয় লোকজন আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে ১৩ জনকে ভর্তি করা হয়। অন্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

দাগনভূঞা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসলাম উদ্দিন পিকনিকের বাস ও ট্রাকের সংঘর্ষে ২০ জন আহত হওয়ার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।

LEAVE A REPLY