মঙ্গলবার বিকেলে লক্ষ্মীপুর স্টেডিয়ামে জনসভা মঞ্চে পৌঁছে দলীয় কর্মী-সমর্থকদের হাত নেড়ে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি: Society News24

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘ব্যক্তিগত জীবনে আমার চাওয়া-পাওয়ার কিছুই নেই। সব হারিয়েছি। মানুষের উন্নয়ন ও কল্যাণে প্রয়োজনে বাবার মতো জীবন দিয়ে হলেও মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করে বাংলাদেশকে উন্নত ও সমৃদ্ধ হিসেবে গড়তে চাই।’

আজ মঙ্গলবার বিকেলে লক্ষ্মীপুর জেলা স্টেডিয়ামে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

ধানমন্ত্রী বলেন, ‘১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতাকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। আমার মা, ভাই জামাল, কামাল, ছোট ভাই রাসেলসহ ১৮ জনকে হত্যা করা হয়েছে। দুই বোন বেঁচে আছি। এরপর দেশে শুরু হয় ষড়যন্ত্রের রাজনীতি, হত্যা রাজনীতি ও ক্ষমতা দখলের রাজনীতি। একের পর এক ক্যু। আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের ওপর নির্যাতন, জুলুম চালানো হয়, হত্যা করা হয় অনেককে। দেশ পিছিয়ে গেছে।’ তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগের রাজনীতি উন্নয়নের রাজনীতি। আর বিএনপির রাজনীতি ধ্বংসের রাজনীতি। তিনি সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নের দিক তুলে ধরেন।

লক্ষ্মীপুরে ১০টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ১৭টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

লক্ষ্মীপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মিয়া গোলাম ফারুকের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নুর উদ্দিন চৌধুরীর সঞ্চালনায় জনসভায় আরও বক্তব্য দেন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, লক্ষ্মীপুর পৌর মেয়র আবু তাহের প্রমুখ।