প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছেন সানজামুল ইসলাম। ফাইল ছবিবাংলাদেশ ক্রিকেট লিগ (বিসিএল) শেষে সানজামুল ইসলাম ছুটি কাটাতে গিয়েছেন নিজ শহর রাজশাহীতে। অন্য দিনের মতো কাল সন্ধ্যায়ও ঘুরছিলেন বন্ধুদের সঙ্গে। কিন্তু এ সন্ধ্যাটা যে তাঁর কাছে এল অন্যরকম হয়ে। কাল সন্ধ্যার পরই পেলেন সুসংবাদটা—প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পেয়েছেন বাঁহাতি স্পিনার। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশ ওয়ানডে দলে রাখা হয়েছে সানজামুলকে।

সানজামুলকে কেন নেওয়া হয়েছে সেটি তো জেনেছেনই। প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন বলেছেন, তাঁর অলরাউন্ড সত্তাকেই বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। ৫৭ প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে সানজামুলের ২১২ উইকেটের পাশাপাশি আছে ১ সেঞ্চুরি ও ৫ ফিফটি। ৬০ লিস্ট ‘এ’ ম্যাচে পেয়েছেন ৭৮ উইকেট; এই সংস্করণে যদিও সেঞ্চুরি নেই, ফিফটি আছে একটি।
সর্বশেষ বিসিএলটা দুর্দান্ত গেছে সানজামুলের। ৬ ম্যাচে ২৫ উইকেট নিয়ে শুভাগত হোমের সঙ্গে আছেন যৌথভাবে শীর্ষে। গত মাসে চট্টগ্রামে বিসিবি উত্তরাঞ্চলের হয়ে ওয়ালটনে মধ্যাঞ্চলের বিপক্ষে ৮০ রানে ৯ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ইনিংস-সেরা বোলিংয়ের রেকর্ডও গড়েছেন। রেকর্ড গড়ার পরই প্রথম আলোকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সানজামুল বলেছিলেন, ‘সব খেলোয়াড়ের মতো আমিও স্বপ্ন দেখি একদিন জাতীয় দলে খেলব…।’
স্বপ্নটা এখনো পুরোপুরি পূরণ হয়নি ঠিকই, তবে সেটি পূরণে একটি ধাপ তো পেরিয়েছেন।
সুসংবাদের সুবাসে মনটা সানজামুলের ভরে গেছে অপার্থিব আনন্দে। তবে আনন্দক্ষণেই তাঁর ভীষণ মনে পড়ছে একজনকে—বাবা। তিন বছর আগে যিনি চলে গেছেন পৃথিবী ছেড়ে। বাবার কথা মনে পড়তেই অদ্ভুত বিষণ্নতা ঘিরে ধরে সানজামুলকে, ‘রাজশাহীর শিরোইল স্কুল মাঠে আমার ক্রিকেটে হাতেখড়ি। বাবা আর ভাইদের অনুপ্রেরণায় ক্রিকেটে আসা। পেশাদার ক্রিকেট খেলছি সেটা বাবা দেখে গেছেন। তবে প্রথমবারের মতো জাতীয় দলে ডাক পেয়েছি এ সুসংবাদটা তাঁর শোনা হলো না। বাবাকে খুব মনে পড়ছে। যদি ম্যাচ খেলার সুযোগ পাই, সেটাও দেখার সুযোগ হবে না। বাবা যদি দেখতে পেতেন! শুধু আফসোসই হবে আমার।’
মাত্রই প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটের আসর বিসিএলে খেলে হঠাৎ করে ডাক পেলেন ওয়ানডে দলে। এই সংস্করণে কতটুকু মানিয়ে নিতে পারবেন সানজামুল? তিনি অবশ্য আশাবাদী, ‘পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে আমাকে এর সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে। ফরম্যাট নিয়ে ভাবছি না। আমার কাজ হবে ভালো খেলা। সেই চেষ্টাই করব। সময় আছে। আশা করি এর মধ্যেই প্রস্তুত হয়ে যাব।’