জনস্বার্থ বিবেচনায় রাজধানীতে সিটিং সার্ভিস ব্যবস্থা আবারও ফিরিয়ে আনা হতে পারে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এর পাশাপাশি রাজধানীবাসীর গণপরিবহণ সমস্যা সমধানে ভিন্ন চিন্তার কথা জানিয়েছেন তিনি।

বুধবার রাজধানীর মানিকমিয়া এভিনিউয়ে সিল্কলাইন ট্রাভেলস এর উদ্বোধন কালে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, জনগণের কথা ভেবে তাদের সুবিধা-অসুবিধা আমাদের দেখতে হবে। তাই প্রয়োজনে সিটিং সার্ভিস ব্যবস্থা আবারও ফিরতে পারে।

ওবায়দুল কাদের জানান, ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের তত্ত্বাবধানে মে মাসের মধ্যে ৪০০ পাবলিক বাস ঢাকার রাস্তায় নামানো বিষয়ে কথাবার্তা চলছে।

এ সময় রাজধানীতে গণপরিবহন নিয়ে চলমান সঙ্কট নিরসনে পরিবহন মালিকদের সঙ্গে বিকেলে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী আলোচনায় বসছেন বলেও জানান। বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) কার্যালয়ে এ পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।

ভাড়া নিয়ে অনিয়মের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে রবিবার (৬ এপ্রিল) থেকে গণপরিবহনে সিটিং সার্ভিস বন্ধ রয়েছে। বিষয়টি তদারকি করতে বিআরটিএ এর ভ্রাম্যমাণ আদালত কাজ করছে। ফলে রাস্তায় কৃত্রিমভাবে গণপরিবহনের সংকট তৈরি করা হয়েছে।

এ ছাড়া যাত্রীদের কাছ থেকে বেশি ভাড়া আদায়ের অভিযোগও রয়েছে। ফলে গাড়ি সংকটের কারণে যাত্রীরা পড়েছেন চরম দুর্ভোগে।