কাশ্মীরে জঙ্গি নেতা শাবজার ভাট নিহত, বিক্ষোভ–কারফিউ

ভারত-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন হিজবুল মুজাহিদিনের শীর্ষ নেতা শাবজার আহমেদ ভাট তাঁর এক সঙ্গীসহ নিহত হয়েছেন বলে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনী জানিয়েছে। ভাট নিহত হওয়ার ঘটনায় শ্রীনগরে প্রবল বিক্ষোভ হয়েছে আজ শনিবার। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর সংঘর্ষে অন্তত একজন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। খবর এএফপির।
গতকাল শুক্রবার ও আজ মিলে কাশ্মীর উপত্যকায় একাধিক ঘটনায় অন্তত আটজন সশস্ত্র অনুপ্রবেশকারী ও জঙ্গি নিহত হয়েছে বলে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনী দাবি করেছে।
শ্রীনগর থেকে ৪০ কিলোমিটার দক্ষিণের ত্রাল এলাকায় আজ ভোরে ভারতীয় নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত হন ভাট। স্থানীয় পুলিশপ্রধান শেস পাল ভায়েদ বলেন, ‘হামলায় ভাট তাঁর এক সঙ্গীসহ নিহত হন। আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে।’
এ ঘটনার পর শ্রীনগরের বিভিন্ন এলাকায় কারফিউ জারি করা হয়েছে।
কাশ্মীরে হিজবুল মুজাহিদিন সবচেয়ে বড় বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠী। ১৯৮৯ সাল থেকে ভারত-নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে এই গোষ্ঠীসহ বেশ কিছু বিচ্ছিন্নতাবাদী গোষ্ঠী ভারতীয় শাসনের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। এই জঙ্গি সংগঠনটির শীর্ষ নেতা বুরহান ওয়ানি গত বছরের জুলাই মাসে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হওয়ার পর ভাটই দলটির নেতৃত্ব গ্রহণ করেন। ওয়ানি নিহত হওয়ার পর পুরো কাশ্মীর উপত্যকা অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। ভারতবিরোধী বিক্ষোভে অন্তত ১০০ মানুষ নিহত হয়।
১৯৪৭ সালে ব্রিটিশ শাসনের অবসানের পর ভারত ও পাকিস্তানের দুই অংশে বিভক্ত হয়ে পড়ে কাশ্মীর। দুটি দেশই পুরো কাশ্মীরে তাদের বলে দাবি করে আসছে।