পনের আগস্টের নির্মম ঘটনার ওপর নাটক ‘শ্রাবণ ট্র্যাজেডি’ আজ মঞ্চস্থ হচ্ছে

61

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তাঁর পরিবারের সদস্যদের ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টে নির্মমভাবে হত্যার ঘটনাপ্রবাহ নিয়ে নাটক ‘ শ্রাবণ ট্র্যাজেডি’ আজ আবার মঞ্চস্থ হচ্ছে।
বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে চলমান গঙ্গা-যমুনা সাংস্কৃতিক উৎসবে আজ সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় নাটকটির প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হবে। মহাকাল নাট্য সম্প্রদায়ের দর্শক নন্দিত এই নাটকটি ইতোমধ্যে প্রযোজনার ক্ষেত্রে ব্যাপক খ্যাতি অর্জন করেছে।
গঙ্গা-যমুনা সাংস্কৃতিক উৎসব কমিটির আহবায়ক ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুস আজ বাসসকে এই তথ্য জানান ।
১৯৭৫ সালের পনের আগস্টের কালো রাতে স্বাধীনতাবিরোধী একদল ঘাতক বাঙালি জাতির হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ সন্তান, স্বাধীনতার স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের ধানমন্ডিতে তাঁর বাসভবনে আক্রমণ করে এই হত্যাকান্ড ঘটায়। খুনীরা স্বাধীনতার মহানায়ক বঙ্গবন্ধুর সহধর্মিনী বেগম ফজিলাতুন্নেসা মুজিব, তিন ছেলে শেখ কামাল, শেখ জামাল, শেখ রাসেলকেও হত্যা করে। খুনীরা বঙ্গবন্ধুর ছোট ভাই শেখ নাসের, ভাগিনা শেখ ফজলুল মনিসহ আরো অনেককে হত্যা করে। বাঙালি জাতির ইতিহাসে সবচেয়ে কলঙ্কজনক এই ঘটনাপ্রবাহ নিয়েই ‘ শ্রাবণ ট্র্যাজেডি ’ নাটকটি গড়ে উঠেছে। জাতির পিতাকে হত্যার বিচার ও খুনীদের রায় কার্যকরের ঘটনাও এতে তুল ধরা হয়েছে।
নাটকটি রচনা করেছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যপারফরমেন্স বিভাগের অধ্যাপক আনন জামান। নির্দেশনা দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাট্যকলা বিভাগের অধ্যাপক আশিক রহমান লিয়ন। আজ নাটকটির ৪৪তম প্রদর্শনী হচ্ছে। এ নাটকের প্রথম প্রদর্শনী হয়েছে গত আগষ্ট মাসে। নাটকটিতে মহাকাল নাট্য সম্প্রদায়ের ৪০জন শিল্পী অভিনয় করছেন।
গোলাম কুদ্দুস বাসসকে আরও বলেন, খুনীরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে দেশে সামরিক শাসন জারি করে। সংবিধান থেকে স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের চার মূল নীতিকে বাদ দেয়। দেশকে আবারও পাকিস্তান বানানোর পরিকল্পনা করে স্বাধীনতা বিরোধীদের নিয়ে দেশ চালাতে শুরু করে। ১৫ আগস্টের খুনীদের পুনর্বাসিত করে। জাতিরজনকের নাম মুছে ফেলা শুরু করে। ইতিহাসের এই কলঙ্কজন ঘটনা নিয়ে দেশে মঞ্চ নাটক হয়নি। ‘শ্রাবণ ট্র্যাজেডি’ই হচ্ছে জাতির পিতাকে সপরিবারে হত্যার ওপর প্রথম নাটক। নাটকটি আমরা গঙ্গা-যমুনা উৎসবে প্রদর্শনীর ব্যবস্থা করেছি নতুন প্রজন্মের মানুষের কাছে কালোরাত্রি পনের আগষ্টের ঘটনাপ্রবাহ তুলে ধরবার জন্যে। নাটকটি উৎসবে প্রদর্শনীর মাধ্যমে উৎসব আরও গুরুত্ববহ হয়ে উঠবে।