বক্সিং’ডে টেস্টের প্রথম দিন অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৮৯ ওভারে ২ উইকেটে ২১৫ রান করেছে সফরকারী ভারত। অভিষেক ম্যাচ খেলতে নামা মায়াঙ্ক আগারওয়াল ৭৬ ও চেতেশ্বর পূজারা অপরাজিত ৬৮ রান করেন।
মেলবোর্নে সিরিজের তৃতীয় টেস্টে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে ভারত। দুই ওপেনার মুরালি বিজয় ও লোকেশ রাহুলকে বাদ দিয়ে একাদশ সাজায় টিম ইন্ডিয়া। ফলে ভারতের পক্ষে ইনিংস শুরু করেন হানুমা বিহারি ও আগারওয়াল। দুই ওপেনারের শুরুটা ভালোই ছিলো। বেশ সর্তকতার সাথে নিজেদের পথ চলা শুরু করেন তারা। তাই প্রথম ১৮ ওভারে মাত্র ৩৮ রান যোগ করতে পারেন তারা।
তবে ১৯তম ওভারে প্রথম উইকেট হারায় ভারত। ৮ রান করা বিহারিকে শিকার করেন অস্ট্রেলিয়ার পেসার প্যাট কামিন্স। দলীয় ৪০ রানে প্রথম উইকেট হারানোর পর দলকে বড় জুটি এনে দেন আগাওয়াল ও পূজারা। অস্ট্রেলিয়া বোলারদের সমীহ করে খেলেন তারা। তাই এই জুটির মাধ্যমে দলের স্কোর শতরান পেরিয়ে যায়।
দলকে শতরানে পৌছে দিয়েই নিজের অভিষেক টেস্টে হাফ-সেঞ্চুরি তুলে নেন আগারওয়াল। ৯৫তম বলে হাফ-সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন তিনি। হাফ-সেঞ্চুরির পরও নিজের ইনিংস বড় করার চেষ্টা করেন আগারওয়াল। তবে চেষ্টা বিফলে যায়। ৭৬ রানে থেমে যান তিনি। কামিন্সের দ্বিতীয় শিকার হবার আগে ১৬১ বল মোকাবেলা করে ৮টি চার ও ১টি ছক্কা মারেন আগারওয়াল। পূজারার সাথে দ্বিতীয় উইকেটে ২১৬ বলে ৮৩ রান যোগ করেন আগারওয়াল।
এরপর জুটি বাঁেধন পূজারা ও অধিনায়ক বিরাট কোহলি। অস্ট্রেলিয়ার বোলারদের বিপক্ষে আধিপত্য বিস্তার করে খেলেন তারা। ফলে দিন শেষে অবিচ্ছিন্নই থাকেন পূজারা ও কোহলি। টেস্ট ক্যারিয়ারের ২১তম হাফ-সেঞ্চুরি তুলে ৬৮ রানে অপরাজিত পূজারা। তার ২০০ বলের ইনিংসে ৬টি চার ছিলো। ৬টি চারে ১০৭ বলে ৪৭ রানে অপরাজিত কোহলি। অস্ট্রেলিয়ার কামিন্স ৪০ রানে ২ উইকেট নেন।
সংক্ষিপ্ত স্কোর :
ভারত : ২১৫/২, ৮৯ ওভার (আগারওয়াল ৭৬, পূজারা ৬৮*, কোহলি ৪৭*, কামিন্স ২/৪০)।