ড.মোমতাজ উদ্দিন আহমদ মেহেদী মেয়র পদে একজন সৎ সাহসী ও যোগ্য প্রার্থী। তিনি সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ও ঢাকা আইনজীবী সমিতির নির্বাচিত সাধারন সম্পাদক ছিলেন।

তিনি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটিতে ২ বার সদস্য ছিলেন।

তিনি বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলা,জেল হত্যা মামলা,শহীদ আহসানউল্লাহ মাষ্টার হত্যা মামলায় রাষ্ট্র পক্ষে আইনজীবী ছিলেন।

তিনি ৯০ এর ছাত্র গনআন্দোলনের অন্যতম সাহসী ছাত্রনেতা এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারন সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক ছিলেন।

সামরিক শাসন, ২০০১এর BNP জামাতের দু:শাসন ও ১/১১ সেনা শাসিত সরকারে সময়ে জননেত্রী যখন কারাগারে বন্দী তখন এড.মেহেদী মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পাশে ছিলেন এবং আদালত ও রাজপথে সাহসী ভূমিকা পালন করেন। ইতিপূর্বে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের সফল মেয়র আনিসুল হক এর অকাল প্রয়ানে এডভোকেট ড.মেহেদী বিগত উপনির্বাচনে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনয়ন ফরম ক্রয় করে জমা দেন এবং গনভবনে মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর নিকট সাক্ষাতকার দিয়েছিলেন।

এখানে উল্লেখ্য যে, ড. মেহেদী ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন অধীন উত্তরার স্থানীয় বাসিন্দা। তিনি ঢাকা উত্তরের গণ মানুষের জন্য অন্তপ্রাণ ব্যক্তি। তিনি ব্যক্তিগত উদ্যোগে ঢাকা উত্তরের জনগণের জন্য অনেক সেবামূলক কাজ করে আসছেন। সচেতন আইনজীবী সমাজ তাকে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র হিসেবে দেখতে চায়।