বিশ্বব্যাপী মহামারি করোনাভাইরাসে বৃহস্পতিবার মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯৩ হাজার ৭০৬ জনে দাঁড়িয়েছে। গ্রিনিচ মান সময় ১৯০০ টায় বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে এএফপি এ তথ্য জানায়।

গত ডিসেম্বরে চীনে প্রথম এ মহামারি করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে বিশ্বের ১৯২ টি দেশ ও ভূখন্ডে এ ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৫ লাখ ৬৭ হাজার ৫৯০ জনে দাঁড়িয়েছে। এদের মধ্যে কমপক্ষে ৩ লাখ ১৬ হাজার ৮০০ জন সুস্থ হয়ে উঠেছে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের এবং বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার দেয়া তথ্য থেকে এএফপি’র সংগ্রহ করা উপাত্ত ব্যবহার করে তৈরি করা এ পরিসংখ্যান করোনাভাইরাসের প্রকৃত আক্রান্তের সংখ্যার কেবলমাত্র একটি আংশিক প্রতিফলন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কেননা, বিশ্বের অনেক দেশ কেবলমাত্র মারাত্মকভাবে আক্রান্ত লোকদেরই করোনা পরীক্ষা করছে।

এ বৈশ্বিক করোনাভাইরাসে ইতালিতে আক্রান্ত হয়েছে ১ লাখ ৪৩ হাজার ৬২৬ জন এবং মারা গেছে ১৮ হাজার ২৭৯ জন। মৃতের এ সংখ্যা বিশ্বে সর্বোচ্চ। গত ফেব্রুয়ারি মাসের শেষের দিকে দেশটিতে প্রথম করোনাভাইরাসে মৃত্যু ঘটে।

স্পেনে করোনাভাইরাসে ১ লাখ ৫২ হাজার ৪৪৬ জন আক্রান্ত এবং ১৫ হাজার ২৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে ৪ লাখ ৫১ হাজার ৪৯১ জন আক্রান্ত এবং ১৫ হাজার ৯৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুর এ সংখ্যা বিশ্বে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ এবং আক্রান্তের সংখ্যা সর্বোচ্চ। দেশটিতে সবচেয়ে দ্রুত এ মহামারি ভাইরাস ছড়ানোর প্রবণতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

ফ্রান্সে করোনাভাইরাসে ১২ হাজার ২১০ জনের মৃত্যু এবং ১ লাখ ১৭ হাজার ৭৪৯ জন আক্রান্ত হয়েছে। এরপর ব্রিটেনে করোনাভাইরাসে ৭ হাজার ৯৭৮ জনের মৃত্যু এবং ৬৫ হাজার ৭৭ জন আক্রান্ত হয়েছে।

চীনে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩ হাজার ৩৩৫ এবং আক্রান্তের সংখ্যা ৮১ হাজার ৮৬৫ জনে দাঁড়িয়েছে। দেশটিতে ৭৭ হাজার ৩৭০ জন সুস্থ হয়ে উঠেছে।
বুধবার গ্রিনিচ মান সময় ১৯০০ টায় সোমালিয়া ও দিজবৌতি এই প্রথম একজন করে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত মৃত্যুর কথা জানিয়েছে ।

এ পর্যন্ত ইউরোপের দেশগুলোতে করোনাভাইরাসে মোট ৮ লাখ ১১ হাজার ৭২৩ জন আক্রান্ত এবং ৬৫ হাজার ৮১১ জন মারা গেছে। যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় একত্রে ৪ লাখ ৭২ হাজার ১৮৪ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এবং ১৬ হাজার ৪৬৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এশিয়ায় করোনাভাইরাসে ১ লাখ ২৮ হাজার ৬৯০ জন আক্রান্ত ও ৪ হাজার ৫১৪ জন মারা গেছে।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে মোট ৮৮ হাজার ৯৮৫ জন আক্রান্ত এবং ৪ হাজার ৩৫৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। ল্যাটিন আমেরিকা ও ক্যারিবীয় দেশগুলোতে করোনাভাইরাসে ৪৬ হাজার ৮৩৩ জন আক্রান্ত এবং ১ হাজার ৮৭৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। আফ্রিকায় করোনাভাইরাসে মোট ১১ হাজার ৯৫৩ জন আক্রান্ত হয়েছে এবং ৬২৭ জন মারা গেছে। ওশেনিয়ায় করোনাভাইরাসে ৭ হাজার ২২৫ জন আক্রান্ত ও ৫৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।
-বাসস