গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়া উপজেলায় আজ গোপালগঞ্জ-পিরোজপুর সড়কে যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার খাদে পড়ে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হয়েছেন।

আজ শনিবার বেলা ১২টার দিকে টুঙ্গিপাড়া উপজেলার মালেকের বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলেন রিকশাভ্যান চালক আকামুদ্দীন মোল্যা (৫০) এবং বাসের তিন যাত্রী- ঠান্ডা মিয়া (৫০), ঈশান কীর্ত্তনীয়া কৃষ্ণ (২৭) ও সঞ্জীব ধর (৩২)।

নিহত ভ্যানচালক আকামুদ্দীন মোল্যার পিতার নাম মোমরোজ মোল্যা। তার বাড়ি গোপালগঞ্জ জেলার টুঙ্গিপাড়ায়। অন্যদিকে, বাসযাত্রী ঠান্ডা মিয়ার পিতার নাম সৈয়দ আলী মোল্যা। তার বাড়ি বাগেরহাট জেলার চিতলমারিতে। অপর দুই বাসযাত্রী ঈশান কীর্ত্তনীয়া কৃষ্ণ ও সঞ্জীব ধরের বিস্তারিত ঠিকানা পাওয়া যায় নি।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, পিরোজপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী দোলা পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছানোর পর সামনে থাকা একটি ইঞ্জিনচালিত রিকশাভ্যানকে পাশকাটানোর সময় নিয়ন্ত্রন হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই বাসের তিনজন যাত্রী ও রিকশাভ্যান চালক নিহত হন। আহত হয়েছেন আরও ১৯জন যাত্রী।

টুঙ্গিপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এ.এফ.এম নাছিম সড়ক দুর্ঘটনায় চারজন নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহতদের মরদেহ গোপালগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। আহতদের মধ্যে ১৩ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দুর্ঘটনা কবলিত বাস ও রিকশাভ্যানটি উদ্ধার করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, দুর্ঘটনার খবর পেয়ে গোপালগঞ্জের জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।