সু চির ৪ বছরের কারাদণ্ড

সামরিক সরকারের বিরোধিতা ও করোনার বিধিনিষেধ লঙ্ঘনের অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সু চি। এজন্য তাঁকে চার বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে দেশটির সামরিক শাসক।

আজ সোমবার (৬ ডিসেম্বর) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ তথ্য জানিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, সু চির বিরুদ্ধে ১১টি অভিযোগ আনা হয়েছে। তিনি সবগুলো অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

তার বিরুদ্ধে আনা সিরিজ অভিযোগের প্রথম রায় এটি। আরও রায় হলে তাকে আজীবন কারাগারেই কাটাতে হতে পারে। তার বিরুদ্ধে দুর্নীত, অফিসিয়াল সিক্রেটস অ্যাক্ট লঙ্ঘন করা এবং জনসাধারণের মধ্যে অশান্তি উসকে দেওয়ার মতো অভিযোগ আনা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার আগে ৭৬ বছর বয়সী সু চি একজন নির্বাচিত বেসামরিক সরকারের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন। গত বছর অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনে ভোট চুরির অভিযোগ এনে সামরিক বাহিনী তাকে ক্ষমতাচ্যুত করে। এরপর থেকে সু চিকে গৃহবন্দী করে রাখা হয়েছে।