লালমনিরহাটে ভোট গ্রহন শেষ : ইভিএম নিয়ে বিড়ম্বনায়

লালমনিরহাট প্রতিনিধি : লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বাউরা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে।
বুধবার সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে চলে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। তবে ইভিএম নিয়ে বিড়ম্বনায় পড়েন ভোটাররা। ধারনা করা হচ্ছে ৭০ শতাংশ ভোট পড়েছে।
বাউরা ইউনিয়নে ৭ জন চেয়ারম্যান, ১৪ জন সংরক্ষিত ও ৩৭ জন সাধারণ সদস্য পদে প্রার্থী হয়েছেন। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে।
ভোট সুষ্ঠু করতে নানা পরিকল্পনা নেয় স্থানীয় প্রশাসন। ভোটের দিন মাঠে ছিলো ৪ জন ম্যাজিস্ট্রেটসহ পুলিশের ১২টি টিম, বিজিবি ও র‌্যাবের বিশেষ টিম। যদিও দুই একজন প্রার্থীর অভিযোগ ছিলো ইভিএম নিয়ে।
তবিবর রহমান নামে এক বৃদ্ধা জানান, ইভিএম পদ্ধতিতে ভোট দিতে গিয়ে তিনি হয়রানীর শিকার হচ্ছে। দুই ঘন্টা ধরে বসে আছেন।
চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীরা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত রাবিউল হক (নৌকা মার্কা), শামসুল আলম (বাউরা ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি- চশমা মার্কা), বর্তমান চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বসুনীয়া (স্বতন্ত্র প্রার্থী- আনারস মার্কা), আবুল হোসেন (স্বতন্ত্র প্রার্থী- টেলিফোন মার্কা), আলিম আল জাকির বসুনীয়া (স্বতন্ত্র প্রার্থী- টেবিল ফ্যান মার্কা), হাবিবুল হক বসুনীয়া (জাতীয়পার্টি- মটরসাইকেল মার্কা) ও রোমান উল্লাহ(স্বতন্ত্র প্রার্থী- ঘোরা মার্কা)। এছাড়া এ ইউনিয়নের সংরক্ষিত সদস্য পদে ১৪ জন (মহিলা) প্রার্থী ও ৯ টি সাধারণ ওয়ার্ডের সদস্য পদে ৩৭ জন প্রার্থী
বাউরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাচন অফিসার আবু সাঈম জানান, ‘বাউরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ভোটার ২১ হাজার ৬৬৭ জন। পুরুষ ভোটার ১০ হাজার ৮৬৫ ও মহিলা ভোটার ১০ হাজার ৮০২ জন। ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ৯ টি, ভোট কক্ষের সংখ্যা ৬৯ টি।